স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।।ক্যাপিটালমার্কেট২৪.কম

অক্টোবর ১, ২০২০

পঞ্চাশ হাজার প্রবাসীর সৌদি যাত্রা অনিশ্চিত

সরকারের আশ্বাসের পরও পঞ্চাশ হাজারেরও বেশি প্রবাসীর সৌদি আরব যাত্রা অনিশ্চিত। ভিসা এজেন্সিদের সংগঠন বলছে, কাগজ-পত্রের জটিলতায় এখন পর্যন্ত একজনও ভিসা রি-ইস্যুর আবেদন করতে পারেনি। সংগঠনটিন নেতারা বলছেন, সরকারের পক্ষ থেকে দ্রুত এ সঙ্কট নিরসন করতে না পারলে সৌদিতে কাজ হারাবে প্রায় অর্ধলক্ষ বাংলাদেশি শ্রমিক।

ভিসার মেয়াদ বাড়ানোসহ কয়েকটি দাবিতে বেশ কিছু দিন ধরে আন্দোলনে করে আসছিল সৌদি প্রবাসীরা। সরকারের পক্ষ থেকে ২৪ দিন ইকামা ও ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর ঘোষণা এলেও সবার ক্ষেত্রে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাড়েনি। এমন প্রেক্ষাপটে অনেকে দীর্ঘ অপেক্ষার পর টোকেন পেলেও ভিসার মেয়াদ না থাকায় টিকিট পাচ্ছেন না।

ভিসা রিক্রুটিং এজেন্সির নেতারা বলছেন, টানা ৭ মাস কেউ সৌদি আরব না থাকলে তাকে রি-এন্ট্রি ভিসা নিয়ে সৌদি প্রবেশ করতে হয়। করোনার কারণে কয়েক দফায় ভিসার মেয়াদ বাড়ানো হলেও শেষ মুহুর্তে সৌদিতে বিমান চলাচল স্বাভাবিক না থাকায় কর্মস্থলে ফিরতে পারছেন না সৌদি প্রবাসীরা।

কর্মক্ষেত্রে ফেরা নিয়ে অনিশ্চয়তায় থাকা প্রবাসীরা সঙ্কট সমাধানে দ্রুত প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান।এদিক যাদের ভিসা ও ইকামার মেয়াদ আছে তাদের টিকিট দিচ্ছে সৌদি এয়ারলাইন্স ও বিমান বাংলাদেশ। সৌদি এয়ারলাইন্স বুধবার টিকিট দিয়েছে, ২৭০১ থেকে ৩ হাজার টোকেন ধারীদের।

বৃহস্পতিবার দেয়া হবে এ-১ থেকে এ ২০০ ও বি-১ থেকে বি-২০০ টোকেন প্রাপ্তদের। আর বিমান বাংলাদেশ বুধবার টিকিট দিয়েছে ২৪ ও ২৫ মার্চ যাদের ফিরতি ফ্লাইট ছিল তাদের। বৃহস্পতিবার দেবে ২৬ ও ২৭ মার্চে বিমানে যাদের ফিরতি টিকিট ছিল তাদের।