স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।।ক্যাপিটালমার্কেট২৪.কম

জুন ২২, ২০১৯

কান কামড়ে নেয়া ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

সাতক্ষীরা: মেয়েকে উত্ত্যক্তে বাধা দেয়ায় বাবার কান কামড়ে ছিঁড়ে নেয়ার ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা আবু জাফরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।শুক্রবার রাতে দেবহাটার সখিপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আবু জাফর দেবহাটা থানা ছাত্রলীগের সহসভাপতি।

এর আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার ঘলঘলিয়া এলাকায় কান ছিঁড়ে নেয়ার এ ঘটনা ঘটে।আহত আজিজুল ইসলাম খোকন (৪৫) উপজেলার ঘলঘলিয়া গ্রামের রহমত উল্যা সরদারের ছেলে ও ছাত্রলীগ নেতা আবু জাফর (২৫) একই গ্রামের রিয়াজুল সরদারের ছেলে।

এদিকে এমন কাণ্ড ঘটানোর পরই আবু জাফরকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়। দেবহাটা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সুমন ও সাধারণ সম্পাদক এএইচ সোহাগ তাকে বহিষ্কার করে দুই সদস্যের তদন্ত টিম গঠন করেন।

দেবহাটা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সুমন জানান, অভিযোগের পরপরই দেবহাটা সদর থানা ছাত্রলীগের সহসভাপতি আবু জাফরকে বহিষ্কার করা হয়েছে। ঘটনা তদন্তে উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মাহি ও সরকারি খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু রায়হানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ছাত্রলীগে বখাটেদের কোনো স্থান নেই।

দেবহাটা থানা পুলিশের ওসি বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে আবু জাফর পলাতক ছিল। অভিযান চালিয়ে শুক্রবার রাতে সখিপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

আহত আজিজুল ইসলাম খোকন জানান, দেবহাটা সরকারি খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজে এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষে পড়ে তার মেয়ে। তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল ঘলঘলিয়া গ্রামের রিয়াজুল সরদারের ছেলে বখাটে আবু জাফর।

মেয়েকে উত্ত্যক্ত না করতে ও পিছু না নেয়ার জন্য আবু জাফরকে বলায় সে ক্ষিপ্ত হয়। সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে ঘলঘলিয়া বাজারে যাওয়ার সময় আবু জাফর হামলা চালায়। এ সময় তার বাম কানটি কামড়ে ছিঁড়ে নেয় জাফর। পরে স্থানীয়রা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন।