স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।।ক্যাপিটালমার্কেট২৪.কম

মে ৮, ২০১৯

২০ দলীয় জোটে থাকছে না ড. ইরান !

২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক বাংলাদেশ লেবার পার্টির একাংশ আগেই জোট ছেড়েছে। এবার বাকি অংশের চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরানও জোট ছাড়ার আল্টিমেটাম দিয়েছেন। তিনি বিএনপির উদ্দেশ্যে বলেছেন, ২৩ মে’র মধ্যে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট না ছাড়লে ২০ দল ছাড়বে লেবার পার্টি।

মঙ্গলবার (৭ মে) দুপুরে একথা জানান ডা. ইরান। সোমবার রাতে ২০ দলের শরিক বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি জোট ত্যাগের পর মঙ্গলবার এমন সিদ্ধান্ত দিলেন ইরান।

ইরান বলেন, ২৩ তারিখ পর্যন্ত জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ছাড়ার জন্য বিএনপিকে আল্টিমেটাম দিয়েছি। গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, কৃষক-শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী সরকারের একটা মিশন নিয়ে এসেছেন ঐক্যফ্রন্টে। ঐক্যফ্রন্ট তার লক্ষ্য-উদ্দেশ্য পূরণে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। সরকারের এজেন্ডা নিয়েই তারা কাজ করছেন। এ কারণে বিএনপিকে ঐক্যফ্রন্ট ছাড়তে হবে।

তিনি বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ছেড়ে বিএনপিকে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে। দেড় বছর যাবত খালেদা জিয়া কারাবন্দি, তার জন্য যথাযথ কর্মসূচি দিচ্ছে না বিএনপি। দলের সিনিয়র নেতারা খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে কতটা আন্তরিক তা নিয়েও জনমনে প্রশ্ন উঠেছে। এ অবস্থায় তারা ড. কামাল হোসেনের পেছনে ঘুরে সময় নষ্ট করা ছাড়া জাতিকে আর কিছুই উপহার দিতে পারেনি।

এদিকে ২০ দলীয় জোটের অপর শরীক বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম মঙ্গলবার দুপুরে বলেন, আমরা ২০ দলীয় জোটে ছিলাম এবং এখন পর্যন্ত আছি। তবে আশাকরি ২০ দলের সবচেয়ে বড় শরিক বিএনপি তাদের ভুলত্রুটি সংশোধন করে ২০ দল পুনর্গঠনের মাধ্যমে নতুনভাবে কর্মপন্থা নির্ধারণ করবে।

জোটের শরিক কর্নেল (অব.) অলি আহমদের দল এলডিপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম বলেন, ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ যে কারণে জোট ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তার সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করা যাবে না। তিনি সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এলডিপি কি করবে সে বিষয়ে সেলিম বলেন, আমরা এখনও ২০ দলীয় জোটে আছি। আমাদের দলের সভাপতি ড. কর্নেল অলি আহমদ (অব.) দেশের বাইরে আছেন। তিনি দেশে ফিরলে দলীয় ফোরামে সিদ্ধান্ত হবে এলডিপির পরবর্তী সিদ্ধান্ত কী হবে?

২০ দলের শরিক দলগুলোর মধ্যে জামায়াতের পরেই যাদের অবস্থান সেই খেলাফত মজলিসের মহাসচিব আহমেদ আব্দুল কাদের বাংলানিউজকে বলেন, আন্দালিব রহমান পার্থের জোট ত্যাগ ও ইরানের আল্টিমেটামের বিষয়ে আমাদের কিছু বলার নেই। আমরা এখন পর্যন্ত ২০ দলীয় জোটেই আছি। জামায়াতের দু’জন নেতার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা বলেন, আমাদের এ বিষয়ে কিছু বলার নেই।